Monday, May 27, 2024
HomeNews UpdateMoyna : ময়নার বাকচায় বিজেপি সমর্থক কিশোরের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে দানা বাঁধছে...

Moyna : ময়নার বাকচায় বিজেপি সমর্থক কিশোরের অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে দানা বাঁধছে রহস্য, কেন্দ্রীয় তদন্তের দাবী পরিবারের !

spot_imgspot_img
- Advertisement -

নিউজবাংলা ডেস্ক : রাজনৈতিক সন্ত্রাসে লাগাতার উত্তপ্ত পূর্ব মেদিনীপুরের ময়নার বাকচা এলাকায় এক কিশোরের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনা ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। মৃত কিশোরের নাম দিনবন্ধু মিদ্যা (১৮)। তাঁর বাড়ি বাকচার গোড়ামহল গ্রামে। বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ি থেকে খানিকটা দূরে একটি পান বরোজের ভেতর (Moyna) থেকে ওই কিশোরের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এলে তাঁদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখান এলাকার বাসিন্দারা। ওই কিশোরকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে মৃতের পরিবারের দাবী। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

দিনবন্ধুর মা হেনারানী মিদ্যা জানান, “ছেলেটি সন্ধ্যে ৭টার পর স্নান সেরে বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল। রাত্রি ৯টা নাগাদ ফোন করে জানায় বাড়িতে এসে ভাত খাবে। তার কিছু সময় পর থেকেই আর ফোনে যোগাযোগ করা যায়নি। অনেক খোঁজাখুঁজির পর আমরা থানায় গিয়ে নিখোঁজ হওয়ার অভিযোগ জানাই। এরপরেই রাত্রি বেলায় কিছু দূরের পান বরোজের ভেতর থেকে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়েছে”।

এলাকায় উত্তেজনা থাকায় ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বিশাল পুলিশ বাহিনী

হেনারানীর দাবী, “রাজনৈতিক কারনেই আমার ছেলেকে খুন করা হয়েছে”। তিনি জানান, “আমরা বিজেপি করি বলেই প্রতিনিয়ত এলাকার কিছু তৃণমূলের লোক আমার বাড়িতে এসে হামলা চালায়, মারধর করে, বোমাও মেরেছে। তাঁরাই আমার নিরীহ ছেলেকে মেরে ঝুলিয়ে দিয়েছে”। এই ঘটনায় স্থানীয় কয়েকজন তৃণমূল নেতার নামে থানায় অভিযোগ জানানো হবে বলেও দাবী করেছেন তিনি। গোটা ঘটনায় কেন্দ্রীয় সংস্থার তদন্তের দাবী জানিয়েছেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দিনভর এলাকাতেই ছিল দিনবন্ধু। তবে সন্ধ্যের কিছু পর থেকে বাড়ি থেকে সে বেরিয়ে যায়। সে সময় তাঁর পরনে ছিল ঘরোয়া ধুতি। সঙ্গে মোবাইলও ছিল। তবে রাত্রি বেড়ে যাওয়ার পরেও ছেলেটির সঙ্গে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় তাঁর পরিবারের সদস্যরা। এরপরেই তাঁর খোঁজ শুরু হয় এলাকায়। রাত্রি প্রায় ১১টা নাগাদ বাড়ি থেকে সামান্য দূরের একটি পান বরোজের ভেতরে দিনবন্ধুর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। পরনের ধুতির কিছু অংশ ছিঁড়ে সেটি দিয়েই পান বরোজের ওপরে থাকা একটি  লোহার রডের সঙ্গে বাঁধা হয়েছে। ধুতির বাকী অংশ পাশেই পড়ে ছিল।

কি ঘটেছিলেন দেখুন ভিডিওটি :

মৃতের পরিবার সূত্রে দাবী, দেহটি ঝুলে থাকলেও তাঁর পা হাঁটু গাড়া অবস্থায় মাটিতে লেগে ছিল। সেই সঙ্গে তাঁর হাঁটুতে রক্তও দেখতে পাওয়া গিয়েছে। ছেলেটিকে পিটিয়ে খুন করা হয়েছে বলেই দাবী পরিবারের। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যান বিজেপির তমলুক সাংগঠনিক জেলার সম্পাদিকা তাপসী মন্ডল। তাপসী জানান, “মৃত দিনবন্ধুর পরিবারের বাবা, কাকারা সকলেই বিজেপির স্থানীয় কর্মী হিসেবে পরিচিত”। তাপসীর মতে, “ছেলেটির নাম এখনও ভোটার তালিকায় ওঠেনি। তবে তাঁর মৃতদেহটি যেভাবে উদ্ধার হয়েছে তা থেকে স্পষ্ট যে তাঁকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার তদন্তের দাবীতে পুলিশে অভিযোগ জানানো হচ্ছে”। তবে এই ঘটনায় তৃণমূলের কোনও যোগ নেই বলেই স্থানীয় নেতৃত্বের দাবী।

ঘটনাস্থলে হাজির বিজেপির নেতৃত্বরা

ময়না থানা সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই এলাকায় গিয়ে মৃতদেহটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। কিভাবে এই মৃত্যু তা জানতে দেহটিকে আজ শুক্রবার তাম্রলিপ্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে আসার পরেই মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। সেই সঙ্গে মৃতের পরিবারের তরফে কোনও অভিযোগ এলে তাও তদন্ত করে দেখা হবে বলে পুলিশ সূত্রে দাবী জানানো হয়েছে।   

- Advertisement -
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments