Monday, June 24, 2024
HomeKolkataরাষ্ট্রিপতির নামে কুরুচিকর মন্তব্য, থানায় থানায় এফআইআর, বিপাকে অখিল, হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলার...

রাষ্ট্রিপতির নামে কুরুচিকর মন্তব্য, থানায় থানায় এফআইআর, বিপাকে অখিল, হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলার অনুমতি !

spot_img
spot_img
- Advertisement -

নিউজবাংলা : রাষ্ট্রপতিকে উদ্দেশ্য করে রাজ্যের কারা প্রতিমন্ত্রী অখিল গিরির মন্তব্য ঘিরে ক্রমেই উত্তাল জাতীয় রাজনীতি। দেশজুড়ে শতাধিক থানায় অখিলের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে মামলা। দিল্লী থেকে ওড়িষা এবং এই রাজ্যের একাধিক থানায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মামদা দায়ের হয়েছে। ইতিমধ্যে অখিলের বিরুদ্ধে বিরোধীদের পাশাপাশি সুর চড়িয়েছেন তৃণমূলের নেতা মন্ত্রীরাও।

কিন্তু এরপরেও অখিল প্রসঙ্গে রাজ্য সরকার নীরব কেন সেই প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে দেশজুড়ে। কেন অখিল গিরিকে মন্ত্রীত্ব থেকে সরিয়ে ফেলা হবে না, কেনই বা তাঁর বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে না সেই প্রশ্নেও বিরোধীদের আন্দোলনে কার্যত কোণঠাসা রাজ্য। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে একাধিক আদিবাসী সংগঠনের পাশাপাশি বিজেপির তরফে দফায় দফায় বিক্ষোভ আন্দোলন চলছেই।

তবে রাজ্য সরকার অখিলের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নিচ্ছে না তা নিয়েই ক্ষোভ জানিয়ে এই ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্টের হস্তক্ষেপ চেয়ে আবেদন জানিয়েছেন এক আইনজীবি। তবে এই মুহূর্তে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশান বেঞ্চ জনস্বার্থ মামলা দায়েরের অনুমতি দিয়েছে বলে খবর। এরপর বিষয়টি নিয়ে আদালত কোনও পদক্ষেপ নেয় কিনা সে দিকে নজর থাকবে সবার।

একটি সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে উড়িষ্যার বিভিন্ন থানায় রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদি মুর্মুকে অসম্মানের প্রতিবাদে দায়ের হওয়া মামলার জেরে সেখানকার পুলিশেও তৎপরতা শুরু হয়েছে। যে কোনও মুহূর্তেই উড়িষ্যা থেকে পুলিশের দল অখিলকে জিজাসাবাদের জন্য আসতে পারে বলে সূত্র মারফৎ খবর পাওয়া যাচ্ছে। এরই পাশাপাশি দিল্লীতে লকেট চট্টোপাধ্যায়ের দায়ের করা মামলার জেরেও অখিলকে দিল্লী পুলিশ তলব করতে পারে বলেও সূত্রের খবর।

এমন পরিস্থিতিতে সামনের পঞ্চায়েত ভোটে যেখানে আদিবাসী ভোট বাক্সের দিকে নজর থাকছে তৃণমূল ও বিজেপি দুই পক্ষের সেখানে একজন আদিবাসী রাষ্ট্রপতিকে অসম্মানের ঘটনায় অখিলের বিরুদ্ধে দল কোনও ব্যবস্থা নেয় কিনা। ইতিমধ্যেই রাজ্যের একাধিক তৃণমূল নেতা মন্ত্রী অখিলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে কুনাল ঘোষ, মন্ত্রী শশী পাঁজার মতো নেতা নেত্রীরা প্রকাশ্যেই অখিলের মন্তব্যে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এই পরিস্থিতিতে অখিলের ভবিষ্যৎ কোন দিকে যাবে সেদিকেই নজর থাকছে সবার।

- Advertisement -

নিয়মিত খবরে থাকতে আমাদের সোশ্যাল সাইটে যুক্ত হয়ে যান

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments