Tuesday, May 21, 2024
Homeঝাড়গ্রামজাতীয় অ্যাথলেটিক্সে নজির গড়ে ১টি সোনা সহ ৪টি পদক জয় করলেন ঝাড়গ্রামের...

জাতীয় অ্যাথলেটিক্সে নজির গড়ে ১টি সোনা সহ ৪টি পদক জয় করলেন ঝাড়গ্রামের পঞ্চাশোর্ধ নন্দিনীদেবী !

- Advertisement -

নিউজবাংলা : দ্বিতীয় ন্যাশনাল উইমেন মাস্টার্স অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে ৫০ ঊর্ধ্ব বিভাগে ৪০০ মিটার রিলে দৌড়ে প্রথম স্থান অধিকার করে সোনা জয় করলেন ঝাড়গ্রামের গৃহবধূ নন্দিনী মাহাত৷ সেই সঙ্গে এই প্রতিযোগিতায় ৩০০ হার্ডলসে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে তিনি রূপো, ৮০০ মিটার দৌড়ে তৃতীয় হয়ে ব্রোঞ্জ ও দশ কিমি হাঁটা প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অধিকার করে ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছেন।

গত ৪, ৫ ও ৬ নভেম্বর হায়দরাবাদের গাছিবউলি স্টেডিয়ামে এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। নন্দিনীদেবীর চারটি পদক জয়ের ঘটনায় খুশির হাওয়া জঙ্গলমহলজুড়ে। এর আগেও ২০ থেকে ২২মে তামিলনাড়ুর আন্না স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ৪১তম ন্যাশনাল মাস্টার্স অ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপে তিনি দেড় হাজার মিটার দৌড়ে প্রথম স্থান অধিকার করে সোনার পদক লাভ করেছিলেন।

তাঁর বাড়ি ঝাড়গ্রামের নেদাবহড়া গ্রামপঞ্চায়েতের আউলিগেড়িয়া গ্রামে। সেবায়তন গার্লস স্কুল থেকে মাধ্যমিক পাস করে রবীন্দ্র মুক্ত বিদ্যালয় থেকে তিনি উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন। তাঁর স্বামী ভবেশ মাহাত সাধারণ চাষি। খেলাধুলো চর্চার সঙ্গে সংসার সামলেছেন তিনি। দুই সন্তানকে লেখাপড়া শিখিয়েছেন ওই দম্পতি। তাঁদের এক ছেলে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং পাস করে একটি কোম্পানিতে চাকরির প্রস্তুতি নিচ্ছে।

নন্দিনীদেবী গ্রামেরই শিশু শিক্ষাকেন্দ্রের কর্মী। সেই সঙ্গে ইসকন সংস্থার সাহায্যে তিনি গ্রামেরই একটি কোচিং সেন্টারের তত্ত্বাবধান করেন। ১৯৯ এই সেন্টারে ১৭০ জন লোধা শবর সম্প্রদায়ের পড়ুয়াদের কোচিং দেওয়া হয়। এছাড়া তিনি ঝুমুর গানের চর্চা করে থাকেন।

নন্দিনীদেবী বলেন, এই প্রতিযোগিতায় যাওয়ার সময় নেদাবহড়া প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক ঝন্টু সিট ও কলাবনী প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষিকা সুচিত্রা মাহাত আমাকে আর্থিক সহযোগিতা করেন। তাঁদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। এই প্রতিযোগিতার আন্তর্জাতিক ইভেন্টের জন্য এখন প্রস্তুতি নিচ্ছি।

- Advertisement -
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments