Sunday, April 14, 2024
Homeদক্ষিণবঙ্গRamnagar Dacoit : প্রকাশ্য দিবালোকে রামনগরে সমবায় সমিতিতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, বন্দুক-ছুরি নিয়ে...

Ramnagar Dacoit : প্রকাশ্য দিবালোকে রামনগরে সমবায় সমিতিতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, বন্দুক-ছুরি নিয়ে তান্ডব চালিয়ে টাকা লুঠ করে পালাল দুষ্কৃতিরা !

spot_imgspot_img
spot_imgspot_img

রামনগর, পূর্ব মেদিনীপুর : দিনের আলোয় সমবায় ব্যাঙ্কে ভয়াবহ ডাকাতির ঘটনা ঘটল পূর্ব মেদিনীপুরের রামনগর থানা এলাকায়। এদিন সকাল পৌনে ৯টা নাগাদ মোটর বাইকে চড়ে একদল দুষ্কৃতী হামলা চালায় বাধিয়া অঞ্চলের সন্তেস্বরপুর কৃষি উন্নয়ন সমিতি লিঃ। হাতে বন্দুক, ধারালো অস্ত্র ও বোমা নিয়ে সমবায়ের ভেতর রীতিমতো তান্ডব চালায় দুষ্কৃতিরা (Ramnagar Dacoit)। এরপর ব্যাঙ্কের লকারে থাকা সোনা ও ব্যাঙ্কে থাকা নগদ টাকা নিয়ে দুষ্কৃতীরা চম্পট দেয়। গোটা ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। খবর পেয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রামনগর থানার পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বেলা পৌনে ৯টা নাগাদ ব্যাঙ্কে বেশ কিছু গ্রাহকের ভীড় ছিল। সেই সময় হঠাৎই দুষ্কৃতীরা ব্যাঙ্কে ঢুকে পড়ে। সকলের মুখ বাঁধা ছিল এবং হাতে ছিল ধারালো অস্ত্র, বোমা ও বন্দুক। সমবায়ে ঢুকেই দুষ্কৃতিরা প্রথমেই সমস্ত গ্রাহক ও ব্যাঙ্ক কর্মীদের থেকে মোবাইল কেড়ে নেয়। ভেঙে দেওয়া হয় সিসিটিভি ক্যামেরা। কম্পিউটার ভেঙে হার্ডডিস্ক নিয়ে নেয় তাঁরা। এরপরেই ব্যাঙ্কের লকারে থাকা সোনার গহনা, নগদ টাকা নিয়ে দুষ্কৃতীরা চম্পট দেয়।

ব্যাঙ্কের স্টাফ অ্যাকাউন্ট্যান্ট কল্যান বেরা জানিয়েছেন, “আজ সকাল ৭টা নাগাদ অফিস খোলা হয়। আর ৮টা ৪৫টা নাগাদ জনা ছয়েক বোমা, বন্দুক ও ভোজালি নিয়ে ব্যাঙ্কে ঢুকে পড়ে। সেই সময় একজন আমার কাছে পৌঁছে গিয়ে হিন্দিতে বলে যা আছে বের করো। প্রথমেই মোবাইল নিয়ে নেয়। মুখে রুমাল বাঁধা এবং দুজনের মাথায় হেলমেট ছিল। নম্বর প্লেট ছাড়াই দুটো বাইকে করে বেরিয়ে যায় তারা। সেই সময় ৩জন গ্রাহক ব্যাঙ্কে ছিল”। তিনি জানান, “আনুমানিক প্রায় ২১ লক্ষ টাকার মতো লুঠ করে নিয়ে পালিয়েছে দুষ্কৃতির”।

ব্যাঙ্কের ম্যানেজার ইনচার্জ দেবাশিষ সি জানান, “আমি তখন ক্যাশে বসে ছিলাম। একজন হঠাৎই বোমা হাতে নিয়ে আমার কাউন্টার থেকে হাত গলিয়ে আমাকে মারতে উদ্যত হয়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই আরও কয়েকজন পেছন থেকে আমার চেম্বারে চলে আসে। এরপরেই  আমার পেটে ভোজালি ঠেকিয়ে, মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে ধরে বলে যা আছে দিয়ে দে। আমাকে ভল্টের চাবি চাইলে না দেওয়ায় ঘাড়ে বন্দুক নিয়ে মারে। একজন হাতে বোমা নিয়ে আমাকে মারতে উদ্যত হয়। বাধ্য হয়েই চাবি দিয়ে দিলে দুষ্কৃতিরা সব লুঠ করে নিয়ে পালায়। যাওয়ার সময় ব্যাঙ্কের কর্মী সহ গ্রাহকেরও মোবাইল নিয়ে পালিয়েছে ওঁরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে রামনগর থানার পুলিশ। গোটা ঘটনাটির তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

spot_imgspot_img
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments