Wednesday, April 17, 2024
HomeLoksabha Election 2024Trinamool Congress : তমলুকের তৃণমূল প্রার্থী দেবাংশুর প্রচারের প্রথম দিনেই গোষ্ঠী কোন্দলের...

Trinamool Congress : তমলুকের তৃণমূল প্রার্থী দেবাংশুর প্রচারের প্রথম দিনেই গোষ্ঠী কোন্দলের চোরাস্রোতের আঁচ মিলল নন্দীগ্রামে !

spot_imgspot_img
spot_imgspot_img

নন্দীগ্রাম, পূর্ব মেদিনীপুর : নন্দীগ্রামে শাসক দলের গোষ্ঠী কোন্দল সর্বজনবিদিত। আদি বনাম নব্য গোষ্ঠীর বিভাজনের ছবি মাঝে মধ্যেই প্রকট হয়ে দেখা দেয় জমি আন্দোলনের আঁতুড়ঘরে। সোমবার নন্দীগ্রাম থেকে প্রথমবার প্রচারে নেমেছেন তমলুক কেন্দ্রের তৃণমূল (Trinamool Congress) প্রার্থী দেবাংশু ভট্টাচার্য। এদিনই প্রচারের আলোয় চলে এল সেই গোষ্ঠী কোন্দলের ঘটনা। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে যা শাসক দল তৃণমূলের মাথাব্যাথার কারণ হয়ে উঠতে পারে বলেই মত রাজনৈতিক মহলের।

এদিন পূর্ব ঘোষণা মতো নন্দীগ্রামে জানকী মন্দিরে পুজো দিয়ে নিজের প্রচার অভিযান শুরু করেন দেবাংশু। সঙ্গে ছিলেন নন্দীগ্রাম-১ এর ব্লক সভাপতি বাপ্পাদিত্য গর্গ। মূলতঃ তাঁর নেতৃত্বেই নন্দীগ্রামে একাধিক কর্মসূচীতে দেবাংশু যোগ দেন। সেখান থেকে মাজারে চাদর চড়ানো, শহীদ বেদীতে মালা দেওয়া বাদ দেননি কিছুই। সেই সঙ্গে একের পর এক মিছিল, পথ সভার মধ্যে দিয়ে রীতিমতো ঝড় তুলে দেন। জনপ্রিয় ‘খেলা হবে’ শ্লোগানে ভরিয়ে দেন নন্দীগ্রামের একাধিক এলাকা।

কিন্তু সেই সময়ই দেবাংশুর জন্য দেওয়াল লেখা শুরু করেছিলেন তৃণমূলের প্রভাবশালী নেতা সেক সুফিয়ানের অনুগামীরা। অথচ সেদিকে পা না বাড়িয়েই নন্দীগ্রাম জুড়ে একের পর এক কর্মসূচীতে এগিয়ে যান দেবাংশু। এই ঘটনায় ক্ষোভ চাপা রাখেননি সুফিয়ান। পরে সংবাদ মাধ্যমে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের বিরুদ্ধে একরাশ বিরক্তি প্রকাশ করে সুফিয়ানের বক্তব্য, “আমার বাড়িতে আসবে বলে আগে থেকেই পরিকল্পনা ছিল। শতাধিক তৃণমূল কর্মী ঘটনাস্থলে অপেক্ষা করলেও দেবাংশু এই জায়গায় না দাঁড়িয়েই চলে যান”।

সুফিয়ানের দাবী, “গতকাল থেকেই নন্দীগ্রামে আমি দেবাংশুর নাম লেখা শুরু করেছি। কিন্তু গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে যারা তৃণমূলের ক্ষতি করল তাঁরাই এবারও লোকসভা নির্বাচনে দেবাংশুকে ভুল পথে চালিত করছে। স্থানীয় নেতৃত্বের ওপরে ক্ষোভের জেরে মানুষ তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে চলে যাচ্ছেন। আজ যেভাবে আগাম কর্মসূচী বাতিল করে দেবাংশুকে নিয়ে চলে গেল একাংশ তৃণমূল নেতৃত্ব তাতে কর্মীদের মনোবল জোরাল আঘাত পেয়েছে”।

সুফিয়ানের দাবী, “এমনটা চলতে থাকলে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রামে তৃণমূলের বড়সড় ক্ষতি হয়ে যাবে”। সুফিয়ান জানান, “শীঘ্রই বিষয়টি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং দলনেত্রীর গোচরে নিয়ে আসব। এভাবে চলতে থাকলে নন্দীগ্রামে বিজেপি লাভবান হয়ে যাবে”।

সূত্রের খবর, ঘটনাটি জানতে পেরে দেবাংশু জানান, তিনি অবশ্যই সুফিয়ানের সঙ্গে দেখা করবেন। সেই সঙ্গে দেবাংশুর মত, “এবারের লোকসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম তৃণমূলের জন্য ইতিহাস গড়বে” বলেই দাবী দেবাংশুর। এরই পাশাপাশি তৃণমূল প্রার্থীর মতে, “বিজেপির তরফে দুর্নীতির ধোঁয়া তোলা হচ্ছে। আসলে কেন্দ্র যে গ্যাসের দাম বাড়িয়ে দীর্ঘদিন মানুষের টাকা লুঠ করেছে, সেই টাকা সাধারণ মানুষের  কোনও কাজে লাগানো হয়নি তাকে দুর্নীতি বলে”।

দেবাংশু জানান, “এই রাজ্যে ভোট হবে লক্ষ্মীর ভান্ডার, কন্যাশ্রী, ১০০ দিনের কাজের টাকা সহ মানুষের উন্নয়নের ভোট হবে”। নিজের জয় সম্পর্কে অনেকটাই আত্মবিশ্বাসী দেবাংশুর মতে, “তমলুক কেন্দ্রে যদি প্রাক্তন বিচারপতি দাঁড়ান তাহলে বলব, উনি রাজনীতিতে শিশু। উনি যে কোনও দিন মাথা গরম করে রাজনীতি ছেড়ে সন্যাস নিয়ে নিতে পারেন। তখন এলাকার মানুষ কি করবে”।

spot_imgspot_img
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments